২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ| ৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ| ১১ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি| বিকাল ৪:৩০| শীতকাল|
শিরোনাম:
বর্ণাঢ্য আয়োজনে চকরিয়ায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত মহেশখালী কেরুনতলী পাহাড়ে মহেশখালী থানা পুলিশের অভিযানে মদ,অস্ত্রসহ ৪জন আটক। চকরিয়ায় ৫দিন ব্যাপী হস্তশিল্প ও দেশীয় পণ্য মেলা সমাপ্ত মাতামুহুরিতে সাহারবিল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠিত। স্মার্ট সিটিজেন উপহার দিবে ছাত্রলীগ সমাজসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় স্বীকৃতি স্বরুপ সম্মাননা স্মারক পেলেন হাফেজ আমানুল্লাহ। পেকুয়ায় নতুন বছরের বই বিতরণ উৎসব পালিত পেকুয়া যেন চুরের নগরী! দিন দিন বাড়ছে চুরির ঘটনা মুক্তি পেয়ে সাহারবিলের জনগণের ভালবাসায় সিক্ত ইউপি চেয়ারম্যান নবী হোসাইন। চকরিয়া জমজম হাসপাতালে মহান বিজয় দিবস ও সেবা মাসের উদ্ভোদনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন।

তাহলে কি ভেঙে যাচ্ছে ওমর সানী-মৌসুমীর সংসার?

বিনোদন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : সোমবার, জুন ১৩, ২০২২,
  • 61 বার

তাহলে কি ভেঙে যাচ্ছে ওমর সানী-মৌসুমীর সংসার?

লোকমনে একটা ধারণা প্রচলিত আছে, বিনোদন জগতের মানুষের সংসার টেকে না। সেই ধারণা ভুল প্রমাণ করেছেন যে’কজন তারকা, তাদের মধ্যে অন্যতম ওমর সানী ও মৌসুমী। ১৯৯৬ সালে বিয়ের পর তারা দীর্ঘ ২৬ বছর ধরে সংসার করছেন। ঢালিউডের আদর্শ দম্পতির মধ্যেও তাদের নামটি বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়।
কিন্তু গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, দুই যুগ পেরোনো এই সংসারেও নাকি ফাটল ধরেছে। সাম্প্রতিক কয়েকটি ঘটনাকে ঘিরেই গুঞ্জনের সূত্রপাত। গত শুক্রবার একটি শোরুম উদ্বোধনে আমন্ত্রিত ছিলেন ওমর সানী ও মৌসুমী। সেখানে তারা একসঙ্গে হাজির হননি। আলাদাভাবে গিয়ে কেক কাটেন। এমনকি অনুষ্ঠানস্থলে তারা কোনো কথাও বলেননি। পরে আলাদাভাবে স্থান ত্যাগ করেন
শোনা যাচ্ছে, কিছুদিন ধরে আলাদা থাকছেন মৌসুমী ও ওমর সানী। এবার ওমর সানী নিজেই জানালেন, মৌসুমীর সঙ্গে তার কথাও বন্ধ রয়েছে। জায়েদ খান ইস্যুতে তাদের মধ্যে কিছুটা দূরত্ব তৈরি হয়ে গেছে।

ওমর সানী বলেন, “আমি যা বলেছি স্পষ্ট করেই বলেছি। আমি শ্রদ্ধা রেখেই কথা বলতে চাই। আমার পরিবারের প্রতি, মৌসুমীর প্রতি আমার প্রচণ্ড শ্রদ্ধা আছে, আমার ছেলে-মেয়ের প্রতি আমার শ্রদ্ধা আছে। সে (মৌসুমী) যা বলেছে, কী ভেবে বলেছে, আমি জানি না। এ বিষয়টি নিয়ে কিছুদিন ধরে একটু দূরত্ব তো চলছিল। চেষ্টা করছিলাম। কিন্তু আপনারা ভালো জানবেন, ফোন রেকর্ড অনুযায়ী তার সাথে আমার ফোনেও কথা হচ্ছিল না।”
মৌসুমীর প্রতি পূর্ণাঙ্গ সম্মান দেখিয়ে ওমর সানী বলেন, “আমি তার ব্যাপারে মন্দ কথা, খারাপ কথা কিছুই বলব না। সে এখনো আমার স্ত্রী। আমার সন্তানের মা। একটা কথা বলতে চাই- আমি কী বলেছি না বলেছি সম্পূর্ণ আমার ছেলে ফারদিন, আমার মেয়ে ফাইজা জানে। আমাদের কাছে যথেষ্ট পরিমাণ প্রমাণ আছে জায়েদ খান যে ডিস্টার্ব করে। ফারদিন বলুক আর ফাইজা বলুক। আমার ছেলে-মেয়েরা বলুক এই বিষয়গুলো।
উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (১০ জুন) খল অভিনেতা ডিপজলের বড় ছেলের বিবাহোত্তর সংবর্ধনায় অংশ নেন ওমর সানী। সেখানে তিনি জায়েদ খানকে চড় মেরেছেন বলে দাবি করেছেন। বিপরীতে জায়েদ তাকে পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি দিয়েছে। এরপর শিল্পী সমিতিতে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগও দিয়েছেন সানী। তাতে বলেছেন, জায়েদ খান তার ও মৌসুমীর সংসার ভাঙার চেষ্টা করছে।

যদিও ওমর সানীর অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন জায়েদ খান। এমনকি চড়-পিস্তলের ঘটনাও সত্য নয় বলে তার দাবি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ