১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ| ৩১শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ| ৮ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি| সকাল ১১:৩৬| শীতকাল|
শিরোনাম:
বর্ণাঢ্য আয়োজনে চকরিয়ায় ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত মহেশখালী কেরুনতলী পাহাড়ে মহেশখালী থানা পুলিশের অভিযানে মদ,অস্ত্রসহ ৪জন আটক। চকরিয়ায় ৫দিন ব্যাপী হস্তশিল্প ও দেশীয় পণ্য মেলা সমাপ্ত মাতামুহুরিতে সাহারবিল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠিত। স্মার্ট সিটিজেন উপহার দিবে ছাত্রলীগ সমাজসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় স্বীকৃতি স্বরুপ সম্মাননা স্মারক পেলেন হাফেজ আমানুল্লাহ। পেকুয়ায় নতুন বছরের বই বিতরণ উৎসব পালিত পেকুয়া যেন চুরের নগরী! দিন দিন বাড়ছে চুরির ঘটনা মুক্তি পেয়ে সাহারবিলের জনগণের ভালবাসায় সিক্ত ইউপি চেয়ারম্যান নবী হোসাইন। চকরিয়া জমজম হাসপাতালে মহান বিজয় দিবস ও সেবা মাসের উদ্ভোদনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন।

কক্সবাজারের খুরুশকুলে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

সদর প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : সোমবার, জুলাই ৪, ২০২২,
  • 57 বার

খুরুশকুলে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

কক্সবাজারের খুরুশকুলে আওয়ামী লীগের সম্মেলনে গিয়ে হামলার আশংকায় নিরাপত্তার জন্য আশ্রয় নিয়েছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের কাছে। আর জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা ডেকে নিয়ে গিয়েছিলেন পুলিশকে। সেই পুলিশ রক্ষা করতে পারেনি ছাত্রলীগ নেতার প্রাণ।
সংঘবদ্ধ চক্র পুলিশের উপস্থিতিতে কুপিয়ে খুন করে কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল উদ্দিনকে।
রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় খুরুশকুলের ডেইলপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফয়সাল ওই এলাকারই মৃত লাল মোহাম্মদের ছেলে। ঘটনায় আহত ৪ জনের মধ্যে ছাত্রলীগ নেতা রমজানকে গুরুতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে
কক্সবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মাহমুদুল করিম মাদু জানান, খুরুকুল ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলন ছিল রোববার। সম্মেলনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক। সম্মেলন দেখতে গিয়েছিলেন ফয়সাল। ফয়সালের উপর হামলা করতে একটি সংঘবদ্ধ চক্র বাইরে অবস্থান করার বিষয়টি টের পেয়ে তিনিসহ আওয়ামী লীগ নেতাদের অবহিত করেন। তিনি বিষয়টি কক্সবাজার সদর থানার ওসিকে অবহিত করলে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। আওয়ামী লীগ নেতারা ফয়সালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশকে অনুরোধ জানিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। কিন্তু পুলিশের ৩ জন সদস্য নিয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়া উপপরিদর্শক (এসআই) রায়হান তাকে একটি অটোরিক্সা যোগে অন্য জায়গায় প্রেরনের জন্য চেষ্টা করেন। এসময় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পুলিশের সদস্য বাড়ানোর এবং পুলিশের গাড়িযোগে ঘটনাস্থল থেকে তাকে সরিয়ে নেওয়ার অনুরোধ করা হয়। কিন্তু পুলিশ অটোরিক্সায় তাকে এবং কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতাকে তুলে দিয়ে পেছনে পেছনে যেতে থাকে। কিছুদূর যেতেই সংঘবদ্ধ চক্রটি ফয়সালের উপর হামলা চালায়। এতে ফয়সাল নিহত এবং অপর ৪ জন আহত হয়।
কক্সবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জসিম উদ্দিন জানান, হামলাকারীরা পরিকল্পিতভাবে আওয়ামী লীগের সম্মেলন পরবর্তী এ হামলাটি সংগঠিত করে। পুলিশ সদস্য কম হওয়ায় ছাত্রলীগ নেতার প্রাণ রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে পুলিশ।
‘এ হামলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন কেন্দ্রিক নয়’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, হামলাকারীরা বিএনপি-জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত। অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করা জরুরী।
ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল নিহতের ঘটনায় সদর হাসপাতালে ভীড় করেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ঘটনার পরপরই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন
জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান বলেন, ছাত্রলীগ নেতা ফয়সাল হত্যাকান্ড পূর্ব পরিকল্পিত। পুলিশ তার নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতারের দাবী জানান তিনি। একই সাথে নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানান। অন্যথায় বৃহৎ আন্দোলন কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন তিনি।
এ ঘটনায় সদর হাসপাতালে কক্সবাজার সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সেলিম উদ্দিনের সাথে দেখা হলেও তিনি গণমাধ্যমের সাথে কোন কথা বলতে রাজি হননি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ